বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪
উলিপুরে দুই বছর পলাতক থাকার পর হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার
উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি
প্রকাশ: রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪, ৮:৩০ PM
কুড়িগ্রামের উলিপুরে দুই বছর পলাতক থাকার পর হত্যা মামলার প্রধান আসামি মো. আলম মিয়াকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত আলম বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের আক্কেল মামুদ মিয়াজীপাড়া গ্রামের দবির উদ্দিনের পুত্র। 

পুলিশ জানায়, গত ২০২২ সালের সেপ্টেম্বর মাসে উপজেলার বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের আক্কেল মামুদ মিয়াজীপাড়া গ্রামে জমি-জমা ও পারিবারিক বিরোধের জেরে আব্দুস সাত্তারকে পিটিয়ে হত্যা করে মামলার প্রধান আসামি মো. আলম মিয়া ও তার লোকজন। এ ঘটনায় গত ২২ সালের ২০ সেপ্টেম্বর উলিপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। মামলার পর থেকে আসামিরা পলাতক অবস্থায় দেশের বিভিন্ন জায়গায় আত্মগোপন করেন। গত ৯ ফেব্রুয়ারি রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নরসিংদী জেলার মনোহরদী থানার লেবুতলা ইউনিয়নের তারাকান্দী গ্রাম থেকে মামলার প্রধান আসামি মো. আলম মিয়াকে গ্রেপ্তার করে উলিপুর থানা পুলিশ।

আজ রবিবার দুপুরে উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) গোলাম মর্তুজা বলেন, গোপন সংবাদ ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। 

আজকালের খবর/ওআর








সর্বশেষ সংবাদ
বার্সাকে কাঁদিয়ে সেমিফাইনালে পিএসজি
তেজগাঁওয়ে ট্রেন লাইনচ্যুত, ঢাকার পথে ট্রেন বন্ধ
ঢাকাসহ পাঁচ বিভাগে ঝড়-শিলাবৃষ্টির পূর্বাভাস
বাংলাদেশে পালিয়ে এলো মিয়ানমারের আরো ৫০ সীমান্তরক্ষী
ইরানের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞার কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইইউ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
নিসচার ১০ম মহাসমাবেশ উদযাপন কমিটি গঠন
মালয়েশিয়ায় তালাবদ্ধ ঘরে মিললো ঢাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী জয়ের মরদেহ
উপজেলা নির্বাচন : বিশ্বনাথে ৩ পদে ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা
অস্ত্রসহ কেএনএফের আরো ৮ সদস্য আটক
কলকাতা থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী বাসে হামলা
Follow Us
সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি : গোলাম মোস্তফা || সম্পাদক : ফারুক আহমেদ তালুকদার
সম্পাদকীয়, বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : হাউস নং ৩৯ (৫ম তলা), রোড নং ১৭/এ, ব্লক: ই, বনানী, ঢাকা-১২১৩।
ফোন: +৮৮-০২-৪৮৮১১৮৩১-৪, বিজ্ঞাপন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৯, সার্কুলেশন : ০১৭০৯৯৯৭৪৯৮, ই-মেইল : বার্তা বিভাগ- [email protected] বিজ্ঞাপন- [email protected]
কপিরাইট © আজকালের খবর সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | Developed By: i2soft